জনপ্রিয়তার শীর্ষে প্রধানমন্ত্রী, সবচেয়ে সফল মন্ত্রী কাদের

রাজনীতি
অনলাইন ডেস্ক :
০৩:৫৯:৫৩এএম, ২৬ জুলাই, ২০১৯

বর্তমান সরকারের প্রধম ছয় মাসে সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়তা বেড়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার। আর সবচেয়ে সফল মন্ত্রী সরকারের সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

গতকাল বৃহস্পতিবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনি মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে নিজেদের পরিচালিত জরিপ থেকে এ তথ্য বেরিয়ে এসেছে বলে দাবি করেছে বেসরকারি গবেষণা সংস্থা কলরেডি।

সরকারের সার্বিক বিষয়ে সন্তোষ প্রকাশ করলেও ধর্ষণসহ বিভিন্ন অপরাধ বৃদ্ধি, আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি ও বিচারিক প্রক্রিয়ার সীমাবদ্ধতা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন সাধারণ জনগণ। তবে দেশের ৮০ শতাংশ মানুষ বিগত ছয় মাসে প্রধানমন্ত্রীর কর্মকাণ্ডে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। সেইসঙ্গে দেশের ৭৩ শতাংশ মানুষ সরকারের সার্বিক কর্মকাণ্ডে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। 

সংস্থার মুখ্য গবেষক অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী অধ্যাপক ড. আবুল হাসনাৎ মিল্টন জরিপের ফলাফল তুলে ধরে বলেন, সরকারের ছয় মাস পূর্তি উপলক্ষে গত ৮ থেকে ১৪ জুলাই পর্যন্ত টেলিফোনের মাধ্যমে এক হাজার ২৫৫ জনের কাছ থেকে মতামত নিয়ে এ জরিপ পরিচালনা করা হয়েছে। এর মধ্যে ৭৬ শতাংশ পুরুষ এবং ২৪ শতাংশ মহিলা। 

এর আগে নির্বাচনের আগে ও পরপরই দুইটি জরিপ পরিচালনা করে সংস্থাটি। সরকার এ জরিপের ফলাফল গুরুত্বের সঙ্গে নেবে বলে বলে আশা করে তিনি বলেন, জনগণের উদ্বেগের বিষয়গুলো সরকার নিরসনের চেষ্টা করবেন।

জরিপের ফলাফল অনুযায়ী, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিগত ছয় মাসের কর্মকান্ডে সন্তোষ প্রকাশ করেছে ৭৯ দশমিক ৭৫ শতাংশ। এর আগের জরিপে এ হার ৭০ শতাংশ। সরকারের কর্মকাণ্ডে গড়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন ৭৩ দশমিক ০৫ শতাংশ মানুষ। ২৫ দশমিক ৮২ শতাংশ মানুষ মনে করছেন, বিগত দুই মেয়াদের তুলনায় এবারের মেয়াদের গত ছয় মাসে সরকার অনেক ভালো কাজ করেছেন। ২৯ দশমিক ১৬ শতাংশ মানুষ মনে করছেন, বর্তমান সরকার ভালো করছে। এর বিপরীতে সরকারের কর্মকাণ্ডে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন ৫ দশমিক ৮২ শতাংশ এবং অধিকমাত্রায় অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন ৪ দশমিক ৮৬ শতাংশ মানুষ। বিগত দুই মেয়াদের মতোই গত মাসে সরকারের কর্মকাণ্ড একই রকম রয়েছে বলে মনে করেন ৩৪ দশমিক ৩৪ শতাংশ মানুষ।

জরিপের ফলাফল অনুযায়ী, বিগত ছয় মাসে সরকারের গৃহীত বিভিন্ন মেগা প্রকল্প, রাস্তাঘাট উন্নয়ন ও শিক্ষাক্ষেত্রে উন্নয়নের বিষয়ে জরিপে অংশগ্রহণকারীরা প্রশংসা করেছেন। মেগা প্রকল্পের বিষয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন ২২ দশমিক ২৩ শতাংশ, রাস্তা ও যোগাযোগ খাতের উন্নয়নে ২০ দশমিক ৪৯ শতাংশ এবং শিক্ষাক্ষেত্রে উন্নয়নে ৯ দশমিক ৭১ শতাংশ মানুষ সন্তুষ্ট। 

অন্যদিকে, ধর্ষণসহ বিভিন্ন অপরাধ বৃদ্ধি, আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি ও বিচারিক প্রক্রিয়ার সীমাবদ্ধতা নিয়েও উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন তারা। ধর্ষণ ও আইন-শৃঙ্খলার বিষয়ে উদ্বেগ করেছেন ১৫ দশমিক ৭৬ শতাংশ, বিচারিক প্রক্রিয়ার সীমাবদ্ধতা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন ১১ দশমিক ৫০ শতাংশ অংশগ্রহণকারী। জরিপে অংশগ্রহণকারীরা এর বাইরেও অবকাঠামোগত উন্নয়ন, দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ, দুর্নীতি প্রতিরোধ, বেকারত্ব, বিদ্যুৎ, গণতন্ত্র, রোহিঙ্গার বিষয়েও উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।

জরিপে অংশগগ্রহণকারীদের মধ্যে ২১ দশমিক ৬৮ শতাংশ মানুষ নির্ধারিত সময়ে মেগা প্রকল্পের বাস্তবায়নকে সরকারের সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ মনে করছেন। এর বাইরে ১৫ দশমিক ২৫ শতাংশ অপরাধ নিয়ন্ত্রণ, ৭ দশমিক ১৯ শতাংশ অবকাঠামোগত উন্নয়ন, ৫ দশমিক ০১ শতাংশ দুর্নীতি প্রতিরোধকে সরকারের চ্যালেঞ্জ মনে করছেন।