নোয়াখালীতে দুইপক্ষের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ-৯ কাদের-মির্জা অবরুদ্ধ

দেশজুড়ে
বাংলামেইল ডেস্ক।
০৯:৫০:১০পিএম, ১৯ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জার সমর্থকদের সঙ্গে উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদলের সমর্থকদের সংঘর্ষ হয়েছে। এতে উভয় পক্ষের ৯ জন গুলিবিদ্ধসহ কমপক্ষে ৫০ জন আহত হয়েছে। পুলিশ কয়েক রাউন্ড গুলি করেও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ হয়।

এদিকে, স্থানীয় চরকাঁকড়া নতুন বাজারে পৌর মেয়র আবদুল কাদের মির্জাকে অবরুদ্ধ করে রাখার খবর পাওয়া গেছে।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহিদুর রহমান রনি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আজ বিকেলে চাপরাশিরহাট বাজারে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদলের একটি প্রতিবাদ সমাবেশ চলছিল। সমাবেশে কাদের মির্জার সাম্প্রতিক বক্তব্যের তীব্র নিন্দা জানিয়ে বিভিন্ন ভাষণ দেওয়া হয়। এ সময় পৌর মেয়র কাদের মির্জার সমর্থক চরফকিরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জামাল উদ্দিন লিটনের লোকজন সেখানে গেলে কথা কাটাকাটি হয়। এরপর উভয় পক্ষের ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া হয়। একপর্যায়ে উভয় পক্ষ ব্যাপক সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষ চলাকালীন ব্যাপক গোলাগুলির ঘটনা ঘটে।

এদিকে, ঘটনার খবর পেয়ে পৌর মেয়র আবদুল কাদের মির্জা ঘটনাস্থলে যাওয়ার চেষ্টা করলে সংঘর্ষস্থলের পাশে চরকাকঁড়া নতুন বাজার এলাকায় তাঁকে অবরুদ্ধ করে রাখা হয় বলে জানা যায়।